হেলস প্যারাডাইজ রিভিউ: hells paradise 2023 Anime Review

Hell’s Paradise (2023) Review: হেলস প্যারাডাইজ রিভিউ

Spring 2023-তে যেই অ্যানিমেটির অ্যাকশন দৃশ্য ও মিস্টিরিয়াস প্লটলাইনটি আমাকে সবথেকে বেশি ইমপ্রেস করেছে

তা হলো Mappa Studio- এর “Hell’s Paradise” সিরিজটি! যেমন চমৎকার কাহিনী, ঠিক তেমনি চমৎকার ভিজুয়ালাইজেশন ও একজন মারাত্মক পাওয়ারফুল প্রোটাগনিস্ট।

Gabimaru The Hollow‘, সব মিলিয়েই এই সিরিজটি বর্তমান সময়ে আমার অন্যতম প্রিয় একটি সিরিজ হয়ে উঠেছে!

হেলস প্যারাডাইজ রিভিউ

No_Spoiler_Review

IMDB Rating: 8.4

MyAnimeList (MAL) Rating: 8.2

Japanese: Jigokuraku

Genre: Action, Fantasy, Adventure

Episodes: 01 Season – 13 Episodes

হেলস প্যারাডাইস রিভিউ

এই সিরিজটি একদম প্রথম পর্ব থেকেই আপনাকে এর মিস্টিরিয়াস প্লটলাইনের সাথে মিশিয়ে নিবে, এতোটাই চমৎকার একজিকিউশান ছিল প্রথম পর্বের।

সব চাইতে বড় বিষয় হলো প্রথম পর্বেই আপনার পরের পুরো কাহিনীটি জানার একটা প্রবল ইচ্ছা তৈরি হবে যা আমি মনে করি একটি ভালো সিরিজের প্রধান বৈশিষ্ট্য।

তারপর একের পর এক পর্বের মাধ্যমে আপনি সিরিজটি শেষ না করে উঠতে চাইবেন না কোনোভাবেই। শুধু যে গল্পটির জন্য সিরিজটির প্রতি আপনার ইন্টারেস্ট ও ভালবাসা জন্মাবে তা কিন্তু না।

কাহিনীর অত্যন্ত ডার্ক ভাইব ও অনেকটা কমপ্লিকেটেড রিলিজিয়াস কনসেপ্টের ব্যবহারের পাশাপাশি ওয়েল রিটেন ক্যারেক্টারস এই সিরিজটির প্রতি আপনার আগ্রহ ধরে রাখতে মূখ্য ভূমিকা পালন করে।

তবে এই সিরিজে ব্লাড, ভায়োলেন্স, গোর ও সেক্সুয়াল কন্টেন্টের প্রচুর ব্যবহার আছে। তাই এই সিরিজটি শুধুমাত্রই প্রাপ্ত বয়স্কদের ও ম্যাচিউর মাইন্ডসেটের দর্শকদের জন্যই উপযুক্ত।

Technical Making

আপনি এই সিরিজের কাহিনীর প্রতিটা টুইস্টের পাশাপাশি এর ক্যারেক্টার বিল্ড আপ ও কালারফুল ভিজুয়ালসের একদম প্রেমে পড়ে যেতে বাধ্য! তাছাড়া অ্যাকশন দৃশ্য গুলোর ভিজুয়ালাইজেশন বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

হেলস প্যারাডাইজ রিভিউ - hells paradise anime review
হেলস প্যারাডাইজ রিভিউ – hells paradise anime review

কিছু কিছু দৃশ্যেতো উত্তেজনায় তালি দিতে মন চাইবে আপনার!

সেইসাথে ছিল অসাধারণ ও মানানসই একটি ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক যা প্রতিটি দৃশ্যের মান আরো কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে! মানে এক কথায় Mappa Studio জাস্ট নেইলড ইট!!

Character Analysis (Heroes)

চরিত্র গুলোর কথা বলতে হলে প্রথমেই চলে আসে প্রধান চরিত্রে থাকা Gabimaru-র কথা। ‘Iwagakure’ নামের একটি নিনজা গ্রামের নামকরা পাষাণ হৃদয়ী গুপ্তঘাতক Gabimaru-কে আমরা প্রথম পর্বে দেখি তার সকল ক্রাইমের শাস্তির অপেক্ষায় জেলবন্দি অবস্থায়।

তবে কোনো এক অদ্ভুত কারনে তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করাতে বাধার সৃষ্টি হয় বারবার এবং সেখান থেকেই সিরিজের ঘটনার সূত্রপাত হয়।

আমার দেখা বেস্ট ও স্ট্রংগেস্ট প্রটাগনিস্ট গুলোর মাঝে একজন এই ‘Gabimaru the Hollow’ নামের ছেলেটি। যতই এই ছেলেটিকে দেখেছি ততই যেন তার প্রতি মুগ্ধ হয়েছি!

সকলের কাছে পাষাণ হৃদয়ী ও একজন ভয়াবহ হত্যাকারি হিসেবে পরিচিতি পাবার পরও নিজের স্ত্রীকে এতটা ভালবাসা ও সম্মান করে এই ছেলেটি যা হয়তো তাকে না দেখলে বুঝতে পারতাম না।

প্রায় প্রতিটি পর্বে নিজের লিমিট অতিক্রম করে আরো অনেক শক্তিশালী হবার পিছনে তার একমাত্র অনুপ্রেরণা তার স্ত্রী Yui এবং এই পুরো সিরিজে বারবার এই বিষয়টি আপনি টের পাবেন! তাছাড়া তার ফাইটিং স্টাইলটা একেবারেই ফাটাফাটি লেগেছে আমার কাছে!

Gabimaru-র পাশাপাশি যেই পাঁচজন চরিত্রকে খুবই ভালো লেগেছে তারা হলো Yamada Asaemon Clan-এর Sagiri, Shion, Tenza, Touma ও কুখ্যাত ডাকাত হিসেবে পরিচিত Choubei Aza। এই সিরিজের মোটামোটি সব গুলো চরিত্রেরই ব্যাকস্টোরি দেখানো হয়েছে; সময় এবং ডিটেইলস দিয়ে, যা একটি প্লাস পয়েন্ট।

Sagiri যে কিনা তার Clan-এর একমাত্র ফিমেল সামুরাই তার প্রতিনিয়ত ডিসক্রিমিনেশন ফেস করা এবং পরবর্তীতে নিজের কনফিডেন্সের খুঁজে পাবার বিষয় গুলো সিরিজে একটি ইমোশন যোগ করে।

তাছাড়া তার ও Gabimaru-র বন্ধুত্বটাও ভালো ভাবেই গড়ে উঠে মাত্র কয়েক পর্বেই।

Shion-কে আমার কাছে একটি ওয়াইল্ড কার্ড চরিত্র মনে হয়েছে কারন প্রথমে তার স্ক্রিনটাইম খুবই কম ছিলো কিন্তু পরবর্তীতে এই অন্ধ সামুরাইটি নিজের ফাইটিং স্কিল গুলো দিয়ে সব গুলো দৃশ্যে একেবারেই আগুন ধরিয়ে দিয়েছে!

অপরদিকে, Tenza-কে খুবই ভালো লেগেছিল আমার কাছে তবে তার কাহিনীটি হয়তো এই সিরিজের সবচাইতে ইমোশনাল একটি এন্ডিং দিয়ে শেষ করা হয়েছে।

Touma যেখানে একজন সামুরাই তার ভাই Choubei সেখানে একজন কুখ্যাত ডাকাত। কিভাবে এমন বিপরীত জীবন হলো তাদের তাও চমৎকার ভাবে দেখানো হয়েছে। তবে Choubei-কে খুবই দারুন লেগেছে তার পাগলামো, ড্র্যাস্টিক পার্সোনালিটি ও মারপিট করার স্বভাবের জন্য!

এছাড়া Mei নামের একটি রহস্যময় চরিত্র আছে যার ব্যাকস্টোরিটা জেনে তার জন্য অসম্ভব মায়া ও বেদনা অনুভব করতে পারবেন। অন্যান্য চরিত্র গুলোর মাঝে Yuzuriha, Senta, Fuchi, Gantetsusai ও Nurugai বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

Character Analysis (Villains)

তবে একটি ভালো সিরিজের আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হলো এর ভিলেন চরিত্র গুলো এবং “Hell’s Paradise” সিরিজের ভিলেন গুলো ১ম সিজনের শেষ পর্যন্ত বেশ কিছু রহস্য দিয়ে ঘেরা ছিলো।

এখানে প্রধান ভিলেন হিসেবে দেখানো হয়েছে ‘Tensen’ নামের বেশ কয়েকটি চরিত্রকে যাদের মূল উদ্দেশ্য ও কাহিনী জানার পর আপনি একদমই শকড্ হয়ে উঠবেন! তাছাড়া এই Tensen-গুলো অসম্ভব শক্তিশালী!

এতটাই যে তাদেরকে একটা পর্যায়ে ইনভিনসিবল বলেই মনে হয়েছে আমার কাছে। প্রথম সিজন শেষ হবার পরও আমি ঠিক শিওর না যে কিভাবে Gabimaru ও বাকিরা এদের হাত থেকে রক্ষা পাবে!

শুধু জানি যে ‘Tao’ নামের একটি শক্তির কনসেপ্ট আছে যা আয়ত্ত করা আমাদের প্রটাগনিস্টদের জন্য অত্যাবশ্যক!

Verdict and Final Thoughts

“Hell’s Paradise” সিরিজটি আমি অবশ্যই সকলকে হাইলি রিকমেন্ড করবো! আমি আসলে বলে বোঝাতে পারবোনা যে এই সিরিজটি আমার কাছে কতটা সেরা লেগেছে!

যারা অ্যাকশন-অ্যাডভেঞ্চার জনরার সাথে ডার্ক ও ইউনিক প্লটলাইনের একটা পারফেক্টলি ব্লেন্ডেড সিরিজ দেখতে চান তাদের জন্য এটা মাস্ট ওয়াচ!

এছাড়াও যেকোনো জনরা লাভারই এই সিরিজের স্টোরি ও একজিকিউশান অ্যাপ্রিসিয়েট করতে পারবে বলেই আমার ধারনা।

অলরেডি দ্বিতীয় সিজনের ঘোষণা চলে এসেছে তাই আশা করছি যে সামনে আরো অনেক গুলো প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পাবো যেগুলো এই সিজনে খোলাসা করা হয়নি।

তবে যেই ভয়াবহ একটি ক্লিফহ্যাঙ্গারে শেষ করা হয়েছে এই অসাধারণ সিরিজটি তাতে নিজেকে সামলে রাখা কঠিন! তাই শিগগিরই দ্বিতীয় সিজন চলে আসুক সেই আশা নিয়েই আছি।

মুল গল্পের কাহিনি

জাপানের Edo সময়কালে সেট করা এই কাহিনীটি ফলো করে মৃত্যদন্ড প্রাপ্ত একদল ক্রিমিনাল ও তাদের সাথে অ্যাসাইন করা Yamada Asaemon Clan-এর সামুরাই গার্ডদের যাদের নিয়োগ করা হয় একটি ভয়ংকর অভিযানে ।

তাদেরকে উদ্দেশ্য দেয়া হয় “Shinsekyo” নামের একটি রহস্যময় দ্বীপে গিয়ে তাদের মাঝের যেকোনো একজন যে “Elixir of Life” খুঁজে এনে তাদের দেশের রাজা/Shogun-কে দিতে পারবে তার সকল ক্রাইম মাফ করে তাকে মুক্ত করে দেয়া হবে।

কিন্তু এই দ্বীপে আজ পর্যন্ত যারা গিয়েছে তারা কখনোই ফিরে আসেনি! কি আছে সেই রহস্যময় দ্বীপে এবং শেষ পর্যন্ত কেউ কি খুঁজে পাবে এই Elixir of Life?

আদৌ কি তাদের মাঝে কেউ ফিরে জীবিত ফিরে আসতে পারবে? তাই জানতে হলে দেখতে হবে এই সাংঘাতিক সিরিজটি!

Leave a Comment

Total Views: 6228

Scroll to Top