ব্যাটওম্যান এপিসোড ৩ বাংলা রিভিউ

Batwoman Season 1 Episode 3 Review

ব্যাটওম্যান সিজন ১ এপিসোড ৩ রিভিউ

গত ২০ অক্টোবরে অ্যারোভার্সের নতুন সিরিজ ব্যাটওম্যান এর ৩য় এপিসোড প্রচারিত হয়েছে । আপনি যদি ব্যাটওম্যান এর অরিজিন না জেনে থাকেন, তাহলে ব্যাটওম্যান অরিজিন ইতিহাস রিভিউ পোস্ট পড়ে নিন। Batwoman ∆ হল ব্যাটম্যান এর কাজিন কেট কেন্স । যার ছোটবেলায় মা আর বোন রোড এক্সিডেন্ট এ মারা যায়। এর পরে সে ওয়েন্স ম্যানারে এ ব্রুস ওয়েন তথা ∆ ব্যাটম্যান ∆ এর কাছে বড় হয়।

পরে ব্যাটম্যান তথা ব্রুস ওয়েন ∆ গোথাম শহর থেকে গায়েব হয়ে যাওয়ার পরে ।

সে অন্যায়ের বিরুদ্ধ্যে লড়াই করতে গিয়ে ∆ ব্যাটম্যান এবং ব্রুস ওয়েনের ∆ আসল পরিচয় জানতে পারে এবং ব্যাটম্যান এর স্যুট নিয়ে এর কিছুটা মোডিফাই করে নিজের জন্য সুপারহিরো স্যুট বানায়। নেমে পড়ে গোথাম শহরের সন্ত্রাসী দমনের লক্ষে।

আর এই ভাবে শুরু হয় কেট কেন্সের ব্যাটওম্যান যাত্রা ।

ব্যাটওম্যান সিজন ১ এপিসোড ৩ রিভিউ

∑‡ স্পইলার এলার্ট †⁺

Batwoman Episode 3 Breakdown Review

★ ব্যাটওম্যান সিজন ১ এর এপিসোড ৩ এর নাম ছিল Down.Down.Down । এর ব্যাপ্তিকাল ছিল প্রায় ৪২ মিনিট । প্রচারিত হয়েছিল ২০ শে অক্টোবর এ The CW নেটওয়ার্ক এ । এপিসোড এর শুরুতেই পুরনো দৃশ্য দেখানো হয় । বিশেষ করে আগের দুই এপিসোড এর কিছু দৃশ্য ।

★ এপিসোড এর শুরুতেই দেখা যায় অ্যালিস বিছানায় ঘুমিয়ে রয়েছে । সে স্বপ্ন দেখছে , সেখানে দেখা যায় যে অ্যালিস এর ছোটবেলার দৃশ্য । অজানা এক বাড়িতে সিঁড়ি বেয়ে নিচে নামছে । সেখানে রাখা একটি পাত্রের ভিতর সে মানুষের মাথার একটি কংকাল খুঁজে পায় । ভয় পেয়ে সে চিৎকার দেয় । এর পরে তার ঘুম ভেংগে যায় ।

★ এর পরের দৃশ্যে দেখা যায় যে কেট কেন্স ওয়েন্স টাওয়ের নিচে থাকা ব্যাট কেভ এ বসে রয়েছে । সে বলছে যে, ব্রুস তোমার স্যুট পরে শহরে বের হওয়ার পরে আমি আশা করিনি যে এতো মানুষ আমার উপর নির্ভর করবে । এখন আমি তোমার মান রাখতে পারব কিনা যানিনা ।

★ এর পরেই ব্যাটলাইট চালু হয় । যেখান থেকে চালু হয়, সেখানে কেট গেলে দেখা যায় যে অ্যালিস সেখানে রয়েছে । অ্যালিস বলে মনে হচ্ছে লাইটার নষ্ট হয়ে গেছে । এর মাধ্যমে তো ব্যাটম্যান আসার কথা। তাই না?

★ সেখানে তাদের মধ্যে কথোপকথন হয় । এর পরে অ্যালেস বলে আচ্ছা ঠিক আছে, আর কোন খুন নয় এর বদলে আমাকে আমার বয়ফ্রেন্ড ফেরত চাই । কেট বলে ঠিক আছে ২৪ ঘণ্টা কোন খুন করবে না, নলে তোমার বয়ফ্রেন্ডের আশা ছেড়ে দাও ।

★ এর পরে দেখা যায় যে ওয়েন রিসার্চ সেন্টারে একজন গাড়ি নিয়ে আক্রমণ করে । পরবর্তিতে একটি ট্রেইনিং সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয় । যেখানে কেট এর পুরনো গার্লফ্রেন্ড, সোফি তার স্বামীর সাথে লড়াইয়ের অনুশীলন করছে । সোফি সেখান থেকে চলে যায় । তাদের বস এর কাছে । সেখানে গিয়ে বলে, অ্যালিস যেকোনো সময় আক্রমণ করতে পারে । আমি আপনার কাছে স্পেশাল এসাইমেন্ট চাই ।

★ এর পরে দেখা যায়, কেট এর বোন ম্যারি তার ইলিগ্যাল নার্সিংহোম এ কিছু ব্যক্তিদের চিকিৎসা দিচ্ছে । এর পরে সে বাড়িতে চলে আসে । এখানে দেখতে পায় যে তার রুমে সোফি বসে রয়েছে । সে সোফিকে দেখে বলে, তুমি কি কেট এর সাথে দেখা করতে আসছ? ও বাসায় নেই এখন। সোফি বলে না, তবে আমি এখন থেকে তোমার বডিগার্ড হিসেবে পাহারায় থাকব। জানোই তো এক পাগল খুনি তোমার পরিবার কে আক্রমণ করছে নিয়মিত। ম্যারি মানা করলে সোফি বলে কোন লাভ নেই, এটা তোমার বাবার নির্দেশ ।

★ এর পরে দৃশ্যে ওয়েন টাওয়ারে নিয়ে যাওয়া হয়। যেখানে ব্রুসের চেয়ারে, ব্রুসের ছোটবেলারর বন্ধু টমি এলিয়ট কে দেখা যায় । সে জিজ্ঞাসা করে ব্রুস কোথায়? কেট উত্তর দেয় ব্রুস এখানে নেই । সে বলে ঠিক আছে তাহলে । এই যে আজ রাতে আমার বিল্ডিং এ হতে যাওয়া পার্টির ইনভেটেশন কার্ড রেখে গেলাম। অবশ্যই ব্রুস কে নিয়ে যাবে কিন্তু । এর পরে সে সেখান থেকে চলে যায়। তখন কেট এর মোবাইলে ফোন আসে ।

★ লুক তাকে ফোন করে । কেট সেই রির্সাচ সেন্টারে গেলে দেখা যায় যে, সেখানে থাকা একটি অ্যাডভান্সড ওয়েপন চুরি হয়েছে । এই ওয়েপন এর মাধ্যমে ব্যাটস্যুট এ গুলি করলে সেটা ধ্বংস করা যায় । এই ওয়েপন এর মাধ্যমে ব্যাটম্যান কে মারা যায় । ব্রুস এই ওয়েপন তৈরি করেছিল, যদি কখনো খারাপ ব্যক্তির কাছে ব্যাটস্যুট চলে যায় সেকারনে । কেট তখন বলে আমি হয়ত জানি কে চুরি করেছে । বলে সে চলে যায় ।

★ এরপরে দেখা যায় যে অ্যালিস এক গার্ড কে হত্যা করে এবং একটি বাড়িতে ঢুকে । যেটা কিনা তার বাবার পেন্ট হাউস । সেখানে সে তাদের রুম গুলি চেক করে । অন্যদিকে কেট এলিয়ট এর পার্টিতে যায় । সেখানে লিফটে যাওয়ার সময় সোফি আর ম্যারির সাথে দেখা হয় তার । পার্টিতে গেলে এক বারটেন্ডার মেয়ে রেগান এর সাথে পরিচয় হয় । কেট এর বাবা সেখানে আসলে বলে, তুমি আবার অ্যালিস এর সাথে কথা বলেছো? কেট বলে অ্যালিস আগামী ২৪ ঘণ্টায় আর কোন সমস্যা করবে না ।

★ এর পরে কেট এলিয়ট এর সাথে কথা বলে । সে বলে ওয়েন রিসার্চ সেন্টার থেকে যে গাধায় ওয়েপন টি চুরি করেছে সে জানেনা যে সেটার সাথে জিপিএস ট্রাক্যার লাগানো আছে। একটু পরেই সিকিউরিটি গার্ডরা তাদের দরজা ভেংগে ভেতরে ঢুকবে । এ কথা বলে কেট সেখান থেকে চলে যায় ।

★ এর পরে কেটের বাবার মোবাইলে কল আসে। অ্যালিস ফোন দিয়ে বলে, তুমি আমার পাশাপাশি এই সংগিত কেও দেখি ভুলে গেছ । কেটের বাবা জিজ্ঞাসা করে তুমি কোথায়। অ্যালিস উত্তর দেয় না । সে অন্য কথা বলে । পরে কেটের বাবা জানতে পারে যে অ্যালিস তাদের পেন্ট হাউসে রয়েছে । কেটের বাবা বলে আমি আসছি তোমার জন্য । অ্যালিস বলে এই কথা গুলি যদি ১৫ বছর আগে বলতে, তাহলে আজকে এই দিন দেখতে হত না । তখনি কেটের বাবা তার স্ত্রী, কেটের বোন ম্যারি, এবং কেট কে নিয়ে সেখান থেকে চলে যেতে চায় ।

★ এর পরের দৃশ্যে দেখা যায় যে, টমি এলিয়ট ওয়েন রিসার্চ সেন্টার থেকে চুরি করে আনা ওয়েপন চেক করছে, জিপিএস ট্রাক্যারের জন্য । তখনি সেখানে কেট আসে, কেট ওয়েপনটি নিয়ে যেতে চাইলে এলিয়ট সেটি দেয় না । কেট বলে তুমি এমন কেন করছ? ব্যাটম্যান তোমার মাকে বাচিয়েছে, ব্রুস তোমার বেস্টফেন্ড ছিল। এর পরেও ওকে মারতে চাও কেন? টমি উত্তর দেয়, ব্রস আমার ফ্রেন্ড ছিল ও আমার কোন ক্ষতি করেনি, কিন্তু ব্যাটম্যান করেছে। আমি ব্যাটম্যান কে মারতে চাই । ওর কারনে আমার জীবন খারাপ হয়ে গেছে ।

★ কেট ওয়েপনটি নিতে চাইলে, টম তার দিকে গুলি তাক করে। তার মোবাইলের মাধ্যমে সে ওই টাওয়ারে থাকা লিফট আটকে রাখে।

কেটকে হুমকি দিয়ে বলে যদি ব্যাটম্যান ১০মিনিটের মধ্যে ছাদে এসে দেখা না করে তাহলে এই লিফটের সবাই মারা যাবে । এই বলে টম সেখা। থেকে চলে যায় ।

★ এরপরে কেট সেখান থেকে ব্যাটকেভ এ চলে যায়। সেখানে গিয়ে তার স্যুটে ব্যাটলোগো তে লাল রঙ করে। কেট বলে, যেহেতু তুমি এখানে নেই তাই তোমার হয়ে তোমার বন্ধুকে পিটাতে হবে । সে ব্যাটস্যুট পরে এলিয়ট টাওয়ারে যায় । সেখানে গিয়ে টম এর সাথে দেখা করে । টম বলে তুমিতো ব্যাটম্যান নও । কেট বলে আমি সএএটাই বুঝাতে চাচ্ছি তোমাকে। ব্যাটম্যান নেই এখানে। কিন্তু টম সে কথা শুনে না। কেটের দিকে আক্রমণ করলে সেখানে প্রচুর মারামারি হয় । এক পর্যায়ে সেখানে অ্যালিস আসে এবং কেট কে উদ্ধার করে । অ্যালিস বলে ভেবেছিলাম আমি এখানে এসে মজা করব। কিন্তু ইনিতো আগেই সকল মজা করে ফেলেছে । এর মাধ্যমেই শেষ হয় ব্যাটওম্যান সিজন ১ এর এপিসোড ৩ ।

Leave a Comment

Total Views: 364

Scroll to Top