স্ট্রেঞ্জার থিংস সিজন ৪ রিভিউ

স্ট্রেঞ্জার থিংস সিজন ৪ রিভিউ

প্রথম তিনটা সিজন ওদের নিজেদের মধ্যে যথেষ্ট ভালো কিন্তু এই সিজন ৪ যে সবগুলার মধ্যে এতটা জটিল আর ভালো তা সিরিজের ৪র্থ কিস্তি না দেখলে বলে বোঝানো যাবে না।

Stranger Things Season 4 review in Bangla

বহুল প্রতীক্ষিত নেটফ্লিক্সের এই সিরিজের সিজন ৪ এর ভলিউম ১ রিলিজ হয়েছে গতকাল, তাই আর দেরি না করেই দেখে শেষ করে ফেললাম এই সিরিজের ৪র্থ কিস্তির ভলিউম ১

প্রথম ২ এপিসোড দেখে কিছুটা হতাশ ছিলাম এইটা ভেবে যে বোধয় সিরিজের প্লট কোন রকমে চালানোর জন্য একটা জগাখিচুরি করে বানিয়েছে। কিন্তু সিরিজ যতই এগোতে থাকে ততই জট পাকায় কাহিনী। অনেক প্রশ্ন থাকে , সেই প্রশ্ন আবার সমাধান হয় সেখানেও প্রশ্ন তৈরি হয়। সাসপেন্সের কোন কমতি পাবেন না। কিছু কিছু প্রেডিক্ট করা সিন গুলা ঘটেও ঘটবে না৷ যেটা আমার কাছে একপ্রকার বেদনাদায়ক :3

এখন আসি কোয়ালিটিতে, এই সিজনে কালার গ্রেডিং , ভিএফএক্স , সিজিআই এবং সবশেষ প্লট ! শন লেভি আর ডাফার ব্রাদার্স কোন অংশেই আমাদের হতাশ করে নি। বরং বাকি তিনটার থেকে এই সিজনে উনারা সবকিছুই বেশি দিতে চেয়েছেন৷ এবং পেরেছেন ও৷

এন্ডিং সিন, ভলিউমের কথা শুনে আমি ভেবেছিলাম হয়ত এন্ডিং টা একটু সাসপেন্সে রাখার ট্রাই করবে। এক্সপেকটেশন যতটুকু ছিলো সে পরিমান সাসপেন্স রাখে নি৷ এক্সপেকটেশন থাকার মেইন রিজন হচ্ছে ভলিউম সিস্টেম টা, সচারাচর এরকম কেইসে এন্ডিং সিনটায় এমন একটা সিন রাখার চেষ্টা করে যে অডিয়েন্স যাতে পরবর্তী ভলিউম টা মিস করতে না চায়৷

সেদিক থেকে এই একটা বিষয়ে একটু কমতি রেখেছে। যদিও কমতি বললে ভুল হবে, কারণ, যে জট টা খুললো লাস্টে এসে সেটার দিক থেকে বিবেচনা করলে এন্ডিং সিন নিয়ে কারো মাথা ব্যথা হবে না কারণ ওই টুইস্টটা আবিষ্কার করেই অডিয়েন্স তব্দা খেয়ে থাকবে এক রাত, যে “এইটা কি হইলো! মানে কিভাবে!🤯 “

সবকিছুর সাথে সাথে ওই লাস্টের এই টুইস্ট দেখেই মূলত ৯.৫ রেটিং দেয়া। কারণ বিষয়টা পুরোপুরিভাবে আনএক্সপেক্টেড ছিলো। মানে এত গভীর আর এত জটিল! পুরোপুরি আনএক্সপেক্টেড। প্রতিটা স্টেপের সাথে কতটা রিলেটেড এই টুইস্ট, আমি হলফ করে বলতে পারি কেউ কখনো এইটা আশা করে নাই যে কাহিনী এরকম ও হইতে পারে।

যাই হোক, পরিশেষে এইটাই বলবো , (সবাইকে যেটা বলি) কোন সিরিজের প্রথম দিক দেখেই পুরো সিরিজের কাহিনী জাজ করা উচিত না। যদিও এবার ভুল টা আমি নিজেই করেছি। এক্সপেকটেশনের জন্য :3। বিল্ড করতে দেন কাহিনী। তারপর দেখেন কাহিনী কোথায় আগায়৷ স্ট্রেঞ্জার থিংস সিজন ৪ নিঃসন্দেহে দেখার মত একটা সিজন।

যারা স্ট্রেঞ্জার থিংসের বাকি এপিসোড গুলো দেখেছেন তারা তো অবশ্যই দেখবেন। হয়ত দেখেও ফেলেছেন এতক্ষণে আমার মত। কিন্তু যারা দেখেন নি! স্ট্রিমিং চ্যানেলে, ডাউনলোড সার্ভারে সামনে আসার পরও ইগ্নোর করে গেছেন৷ তাদের জন্য এইটা নিঃসন্দেহে একটা দেখার মত সিরিজ। এটলিস্ট এই সিজন টা দেখার জন্য হলেও দেখা উচিত। আশা করি হতাশ হবেন না।

গতকাল রিলিজ হওয়ায় কোন প্রকার স্পয়লার না দিয়েই কাইন্ডঅফ জগাখিচুরি রিভিউ লিখে উৎসাহ দিতে চেয়েছি। কারণ স্পয়লার দিয়ে ভুল করেও আমি কারো দেখার মুড নষ্ট করতে চাই না।অনেকে স্পয়লার এলার্ট দেখার পর ও কৌতুহল বশত ক্লিক করে পড়েই ফেলে।

অনেকের মধ্যে আমি একজন। যদিও উচিত না তবে, ওইযে কৌতুহল! 😐 যাইহোক, অনেক কিছু লিখে ফেলেছি। সবাই দেখে ফেলুক। অন্যদিন এই সিরিজ নিয়ে আরো বিস্তারিত আলোচনা করে লেখা যাবে।

স্ট্রেঞ্জার থিংস সিজন ৪ রিভিউ
স্ট্রেঞ্জার থিংস সিজন ৪ রিভিউ

উপরের সবটুকুই আমার মতামতের আমার দেখর আঙ্গিকের উপর ভিত্তি করে লিখা, কেউ কেউ ব্যতিক্রম থাকতে পারে। তাদের মতামত কে আমি সাধুবাদ জানাই। প্রায় অনেক দিন পর রিভিউ লিখছি, দয়াকরে ভুলত্রুটি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।
ধন্যবাদ 💗

Stranger Things Review In Bangla


স্ট্রেঞ্জার থিংস সিজন ৪


কেমন ছিল তিন বছরের অপেক্ষা।

যদিও সিজন ৪ এর প্রথম পার্টে মাত্র ৭ টি পর্ব ছিল।

দ্বিতীয় পার্টে মাত্র দুইটা এপিসোড থাকবে যার রান টাইম প্রায় ২ ঘন্টার বেশি হবে বলে জানা গেছে।
Series : Stranger Things Season 4 (part 1)
Episodes : 7
Genre : Thriller /Sci-fi

**** No Spoiler *****

দেখে ফেললাম বহুল প্রতীক্ষিত Stranger Things এর সিজন ৪ ❤️

আর আমি এক কথায় বলবো অসাধারণ ছিল পুরো সিজন! জাস্ট ওয়াও লেভেলের 🔥
এক্সপেকটেশন এর চৌদ্দ গুষ্টি উদ্ধার করে দিয়েছে। দেখার পর মনে হলো এটা কি দেখলাম!! কি ছিলো এটা!!

সিনেমাটোগ্রাফি, দুর্দান্ত ভিএফএক্স,মাথা ধরানো বিজিএম,থ্রিলার,হরর,ফ্যান্টাসি, প্লট সব কিছু খাপে খাপ ছিল। প্রত্যেকটা ক্যারেক্টারে সমান গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে আর সবাই জানপ্রাণ দিয়ে অভিনয় করেছে। এতই জীবন্ত অভিনয় ছিল যে রীতিমতো কলিজা কাঁপিয়ে দিয়েছে।

প্রতি এপিসোডের রানটাইম ১ ঘন্টার একটু বেশি। আমি টেলিগ্রাম এপ দিয়ে দেখেছি।

এই সিজনে যে টুইস্ট আর জটলা পাকানো হয়েছে তা বাকি সিজনকে হার মানায়। আর এন্ডিং টাও খুব ভালো ছিল। এখন পার্ট ২ এর জন্যে অপেক্ষা করতে হচ্ছে।


প্রত্যেকটা এপিসোড টুইস্টে ভরপুর যে এক বসায় দেখে শেষ করতে হবে। উত্তেজনা এতই প্রবল যে কিছু লিখতে চাই না কারণ স্পয়লার হয়ে যাবে।

যারা আমার মতো অপেক্ষার তর সইছিলো না সিজন ফোর এর জন্যে, তারা খুব শিগগির দেখে ফেলেন।

Leave a Comment

Total Views: 1477

Scroll to Top