সনি স্পাইডার ম্যান Across the Spider-Verse Movie

সনি স্পাইডার ম্যান মুভি রিভিউ

স্পাইডার ম্যান এক্রোস স্পাইডার ভার্স এর রিভিউ

থিয়েটারে ২ ঘণ্টার অকল্পনীয়, শ্বাসরুদ্ধকর এক অভিজ্ঞতার জন্ম দিল “Spider-Man: Across the Spider-Verse“.

২০১৮ সালের অস্কারজয়ী ‘Into the Spider-Verse‘ আমার কাছে কমিকবুক মুভি হিসেবে ‘The Dark Knight’ এর সমতূল্য। বুঝতেই পারছেন সেই মুভির সিক্যুয়েল থেকে আমার আশা-ভরসার মাত্রা কতটা ছিল।

আর যখন সিক্যুয়েলটি চোখের সামনে সকল এক্সপেক্টেশনের মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছিল, কেমন যেন আউট অব বডি অভিজ্ঞতা হচ্ছিল থিয়েটারে বসে বসে। মুভির দ্বিতীয় অর্ধেকে এমন কিছু সিক্যুয়েন্স ছিল যে বাইরের দুনিয়া থেকে সম্পূর্ণভাবে আলাদা হয়ে গিয়েছিলাম। মনে হচ্ছিল মাইলসের সাথে মাল্টিভার্সে দৌড়াদৌড়ি করে বেরানোই যেন আমার বাস্তবতা।

Across the Spider-Verse Movie Review

“Across the Spider-Verse” শুরু হয় প্রথম মুভির কাহিনীর কিছু বছর পরে। মাইলস ব্রুকলিনের ওয়ান এন্ড অনলি স্পাইডার-ম্যান, গোয়েন নিজের ইউনিভার্সে ফেরত গিয়ে ব্যক্তিগত জীবন ফেইস করছে।

মাইলস আর গোয়েনের “স্বাভাবিক” জীবন অকস্মাৎ কিছু সারপ্রাইজে আবার ক্যাওটিক হয়ে উঠে। মুভির প্লট নিয়ে বেশি কিছু বলব না। যতটা ফ্রেশ হয়ে দেখা যায়, ততটাই বেটার। মুভির গল্পের মোড়ে মোড়ে রয়েছে ন্যারেটিভ, ইমোশনাল, আর ভিজ্যুয়াল ট্রিট।

সনি স্পাইডার ম্যান মুভি রিভিউ
Spider-man Across Spider Verse 2023 Movie download Link

স্পাইডার সোসাইটির অসংখ্য ইস্টার-এগ, মাল্টিভার্স স্টোরির ব্যাপক স্কোপ, সেকেন্ডে সেকেন্ডে নতুন কোন ভিজ্যুয়াল – এতকিছুর মাঝেও মুভিটি এক মুহুর্তের জন্যও ফোকাস বা রিদম হারায়নি। এটাই সম্ভবত আমার কাছে সবচেয়ে ইম্প্রেসিভ ব্যাপার মনে হয়েছে।

যতই ক্রেজি মাল্টিভার্স জার্নি করতে থাকি, গল্পের মূল বিন্দু মাইলস মোরালিস! যখন গল্পের প্রোটাগনিস্ট মাইলসের মতো ওয়েল-রিটেন আর ডেভেলপড হয়, গল্পের খেই হারানোর কোন উপায়ই নেই।

মাইলসের ব্যক্তিগত জীবন, বাবা-মায়ের সাথে সম্পর্ক, ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তাভাবনা, গোয়েনের সাথে সম্পর্ক, স্পাইডার-ম্যান হওয়ার দায়িত্ব – এ সবকিছু এবার আগের চেয়েও গভীরে গিয়ে, আরো গুরুত্বের সাথে এক্সপ্লোর করা হয়েছে। মাইলসকে বুঝতে পারলে স্পাইডার-ভার্সের আবেগিক কেন্দ্র খুঁজে পাওয়া যায় খুব সহজেই।

আজও পর্যন্ত স্ক্রিনে দেখানো সুপারহিরোদের মধ্যে মাইলস মোরালিসের স্পাইডার-ম্যান আমার কাছে অন্যতম শ্রেষ্ঠ স্থান অধিকার করে আছে। আমার সর্বকালের পছন্দের সুপারহিরো দুইজন- স্পাইডার-ম্যান আর ব্যাটম্যান।

সারাজীবন স্পাইডি ফ্যান হিসেবে “Across the Spider-Verse” একদম পারফেক্ট একটা স্পাইডার-ম্যান স্টোরি মনে হয়েছে। প্রচন্ড উপভোগ্য এক স্টোরির সাথে স্পাইডির চরিত্রের সকল দিককে এত সুন্দরভাবে তুলে ধরা হয়েছে, আমার মনে হয় না এরচেয়ে নিখুঁতভাবে স্পাইডার-ম্যানের গল্প বলা সম্ভব। আশা করছি পরের মুভিতেই ভুল প্রমাণিত হবে আমার এই স্টেটমেন্ট।

এখানে বলে রাখা ভালো, “Across the Spider-Verse” পার্ট ১ হিসেবে কাজ করছে আগামী বছর মুক্তি পেতে যাওয়া “Beyond the Spider-Verse” এর। সুতরাং, মুভির এন্ডিং ই এই গল্পের সমাপ্তি নয়। সামনের বছর শেষ হবে এই মুভিতে শুরু হওয়া মাইলসের জার্নি।

মুভি নিয়ে আর কী বলব? স্টোরি, ভিজ্যুয়ালস, সাউন্ডট্র‍্যাক, স্কোর, ভয়েস এক্টিং, পেসিং- সবকিছু ১০/১০. অনেস্টলি, উল্লেখ করার মতো কোন নেগেটিভ দিক খুঁজে পাই নি আজকে দুপুরে দেখার পর থেকে।

মুভিটি শেষ হওয়ার পরে আমার প্রথম চিন্তা ছিল, কীভাবে কোন মানুষের পক্ষে সম্ভব এই জিনিস বানানো? মির‍্যাকুলাস ই বলতে হবে “Across the Spider-Verse”কে। শতভাগ সফল একটা সিনেমা, যা আর্ট ফর্ম হিসেবে সিনেমার গুরুত্বকে হাইলাইট করে সকল দিক থেকে।

মুভিটির প্রত্যেকটা ফ্রেমে, প্রত্যেকটা সেকেন্ডে লুকিয়ে আছে ফিল লর্ড, ক্রিস্টোফার মিলারের মতো লেখক, হোয়াকিম দোস সান্তোস, কেম্প পাওয়ার্স, জাস্টিন কে থম্পসনের মতো পরিচালকের সাথে হাজারো ট্যালেন্টেড এনিমেটরসদের শৈল্পিক স্বতন্ত্রতা।

শক্তিশালী শৈল্পিক চেতনাকে সিনেমার সাথে যোগ করে কতটা প্রভাবশালী স্টোরিটেলিং সম্ভব তার জলজ্যান্ত উদাহরণ “Across the Spider-Verse”.

Across the স্পাইডার ভার্স এর উপসংহার

গতানুগতিক রিভিউ না লিখে নিজের একান্ত অনুভূতি শেয়ার করলাম হৃদয়ে বিশাল জায়গা করে নেয়া এই মুভিটি নিয়ে। লেটারবক্সে বছরের প্রথম ৫/৫ রেটিং দিতে বাধ্য হলাম স্পাইডার-ম্যান নিয়ে এই অতুলনীয় সৃষ্টিকে।

স্পাইডার-ম্যান ভক্তদের জন্য কোনভাবেই উচিত হবে না মুভিটি বড় স্ক্রিনে না দেখা। প্রত্যেকটি ইন্দ্রিয়ের জন্য অবিস্মরণীয় এক অভিজ্ঞতা বড় স্ক্রিনে এ মুভি দেখা।

এখন অপেক্ষা আগামী বছরের, অপেক্ষা “Spider-Man: Beyond the Spider-Verse” এর!

Leave a Comment

Total Views: 526

Scroll to Top