টাইটান্স Fallen এপিসোড ১০ রিভিউ

Disclosure: This content is reader-supported, which means that if you click on some of our links. then we may earn a commission.
টাইটান্স Fallen এপিসোড রিভিউ - Titans S02 Ep10 Review

টাইটান্স Fallen এপিসোড ১০ রিভিউ

টাইটান্স এপিসোড ৯ এর ধারাবাহিকতায় এই এপিসোড এ ডিক গ্রেসন কে একটি জেলে থাকতে দেখা যায় । এই সময়ে তার পুরনো বন্ধুদের অনেক ঝামেলা পোহাতে হয় তাকে ছাড়া । বিশেষ করে গারর কে ।
জেলের যে পাহাদারদের হাতে খারাপ আচরণ। অন্যদিকে তার সেল এর বাকি সদস্যদের হাতে মৃত্যু আভাস । পুরোটাই ছিল দেখার মত ।
যদিও কিছু কিছু ক্ষেত্রে গল্পটি বলার স্পিড থেমে যাচ্ছিলো ☺। তবে পুরো এপিসোডটি ছিল দেখার মত ।
তবে ম্যান্ডোলরিয়ান এর তৃতীয় এপিসোড দেখলে আপনার মন ফ্রেশ হয়ে যাবে ।
তবে আপনি যদি একটু গোয়েন্দাগিরি আর সুপারহিরোগিরি দেখতে চান তাহলে ☞ দ্যা ফ্ল্যাশ License To Elongate এপিসোড রিভিউটি পড়ে নিন 👍 । এটি ফ্লাশের এই সিজনের অন্যতম ভালো এপিসোড ছিল।

ডিসি এর টাইটান্স এপিসোড ১০ ব্রেকডাওন

🚫 ∑‡ স্পইলার এলার্ট †⁺ 🚫

Titans Season 2 Episode 10 Review

★ টাইটান্স এর সিজন ২ এর এপিসোড নাম্বার ১০ এর নাম ছিল Fallen । এর ব্যাপ্তিকাল ছিল ৪৩ মিনিট । প্রচারিত হয়েছিল ১৮ ই অক্টোবর এ, ডিসি কমিক্সের নিজস্ব অনলাইন স্ট্রিমিং সার্ভিসে যার নাম " DC Universe " ।
★ এপিসোড শুরু হয় আগের এপিসোড এর রিক্যাপ দৃশ্য দেখিয়ে । বিশেষ করে ডিসি এর আরেক টিভি সিরিজ ডুম প্যাট্রোল এর ইন্ট্রো দিয়ে । অন্যদিকে ডিক গ্রেসন এয়ারপোর্ট এ পুলিশকে মেরে জেলে যাওয়ার দৃশ্য দেখানো হয় । তার পরে শুরু হয় এই এপিসোড এর মুল পর্ব ।
Read Also: ম্যালিফেসেন্ট: মিসট্রেস অফ এভিল বক্স অফিস কালেকশন রিপোর্ট দেখে নিন ।
★ এর পরে দেখানো হয় ক্যাডমাস ল্যাবের সিকিউরিটি চিফ মার্সি তার সন্তানদের নিয়ে গাড়িতে করে যাচ্ছে । তখন ওয়াল্টার এর কল আসে । সে মার্সি কে কনর এর ব্যাপারে বলে । মার্সি তখন তার টিম তৈরি করতে বলে ফোন কেটে দেয় । তখন কনর আর ক্রিপ্টো কে দেখা যায় রাস্তা দিয়ে হাটার সময় সে পাশে থাকা পত্রিকায় তার ছবি দেখতে পায় । যেখানে পুলিশ তাকে ধরে দেওয়ার জন্য ছবি ছেপেছে । পরে কনর ক্রিপ্টোকে নিয়ে একটি গলির মধ্যে যায় । তখন কনর ক্রিপ্টো কে বলে চলে যেতে । কিন্তু ক্রিপ্টো যেতে না চাইলে কনর বলে তুমি আমার সাথে থাকলে বিপদে পড়বে, চলে যাও তুমি এখান থেকে । পরে ক্রিপ্টো দৌড়ে চলে যায় ।
★ এর পরে দেখা যায় ডিক জেলের ভিতর কলিং সেন্টারে দাঁড়িয়ে রয়েছে । সেখানে এক গার্ড তার ব্যাকগ্রাউন্ড চেক করে । সে এসে ডিক কে নিয়ে যাওয়ার সময় তাকে সাহায্য করতে বলে । কিন্তু ডিক না করে দেয় । সে বলে আমি এইসকল কাজ ছেড়ে দিয়েছি । তখন গার্ড রেগে যায় এবং তাকে অন্য সেল এ নিয়ে যায় । সেখানে আরো তিনজন মেক্সিকান অপরাধী সেই সেলে ছিল । এর পরে গারর কে টাইটান্স টাওয়ারে দেখা যায়। সেখানে সে একটি ট্যাবে নিউজ দেখছিল । গত পর্বে কনর পুলিশের উপর আক্রমণ এর ভিডিও দেখছিল। তখন সে ডিক কে ফোন দেয়, কিন্তু ফোন বন্ধ থাকায় ভয়েস মেইলে তাকে এখানে আসতে বলে । সে বলে এখানকার পরিস্থিতি খুবই খারাপ তুমি জলদি আসো । সেই মুহুর্তে কলিংবেল বাজে। তখন দেখে দরজার বাইরে ক্রিপ্টো দাঁড়িয়ে রয়েছে ।
★ এর পরে ডোনা কে দেখা যায় । সে ডিক কে ফোন দিয়েছে কিন্তু ফোনে তাকে না পেয়ে ভয়েস মেইল পাঠায় । সে বলে যে শিকাগো যাওয়ার সময় র‍্যাচেল পালিয়ে যায় । আমার মনে হয় র‍্যাচেল বিপদে পড়েছে । ওকে আমি খুঁজে পাচ্ছি না । দয়া করে ফোন ব্যাক করো । এর পরে র‍্যাচেল কে দেখা যায় । সে একটি হোটেলে দারিয়ে সেখান থেকে খাবার খাচ্ছিল, তখন ডোনা ফোন দিলেও সে ফোন কেটে দেয় । এর পরে সে একটি মেয়ের সাথে আলাপ আলোচনা করে ।
Read Also: টাইটান্স সিজন ২ এপিসোড ৬ রিভিউ
★ অন্যদিকে ডিক কে দেখা যায় সেল এর বাইরে প্লে গ্রাউন্ডে দাঁড়িয়ে রয়েছে । তার সেলমেট এর সাথে কিছুটা তর্কাতর্কি হয় । পরে সেই গার্ড এসে ডিক কে ওখান থেকে নিয়ে যায় । পুনরায় ডিক এর কাছে সাহায্য চাইলে ডিক না করে দেয়, এতে গার্ড রেগে চলে যায় । পরে ডিক জিমন্যাস্টিকস এ শরির চর্চা করতে থাকে । এর পরে ডিক সেলের ভিতরে ঢুকার সময় দেখতে পায়, তার সেলমমেটদের কিছু কার্টেল এর সদস্যরা মারছে । তখন তারা বলে যে নতুন সেলমেট ওই কপ কে মেরে ফেলতে হবে । পরে ওরা রাজি হয়ে যায়, ডিক কে মারতে ।
★ এর পরে কনর কে দেখা যায় একটি বাজারে দাঁড়িয়ে রয়েছে । তখন তার পিছনে এসে ক্রিপ্টো দারায় । সেই সাথে গারর আসে । কনর বলে আমার থেকে দূরে থাকো বলে কনর হেটে চলে যেতে থাকে । গারর তার পিছন পিছনে যেতে যেতে তাকে বুঝানোর চেষ্টা করে । তখনি ক্রিপ্টো ঘেউঘেউ করে উঠে । ওরা দুজনে পিছনে তাকালে দেখে ক্যাডমাস ল্যাবের লোকেরা ওদের ধরতে আসছে । তখন কনর এগিয়ে গেলে, গারর কনরকে আটকে বলে তুমি কি মানুষ জনকে আঘাত করতে চাও ? । কনর তখন গাররের সাথে দৌড়ে পালিয়ে যায় ।
★ র‍্যাচেল আর ওই মেয়েটি কথা বলতে থাকে । তখনি ওই মেয়ের পিছনে তার বাবা এসে দাঁড়ায় এবং জোর করে মেয়েটিকে নিয়ে যায় । র‍্যাচেল পিছন পিছনে যায় ওই লোক আর মেয়েটির । রাস্তায় বেরিয়ে লোকটি ওই মেয়েকে মারতে গেলে র‍্যাচেল তার হাত ধোরে ফেলে তার ওই ব্লাক ক্লাউড দিয়ে । তখন র‍্যাচেল ওই লোকটিকে ধোরে বিল্ডিং এর উপরে তুলে ফেলে দেয় এবং বলে এর পরে যেন সে আর ওই মেয়েটির কাছে না আসে । লোকটি দৌড়ে পালিয়ে যায়। র‍্যাচেল মেয়েটির সাথে তাদের আস্তানায় চলে যায় । অন্যদিকে সেই ব্লাক ক্লাউডের কিছু অংশ, একটি শয়তান এর মুর্তির ভিতরে চলে যায় আর সেই মুর্তি শয়তান এর বাচ্চা হয়ে যায় । সেই শয়তান এর বাচ্চার মাথায় দুটি শিং আর পিঠে পাখনা আছে । উড়ে গিয়ে ওই লোকটিকে ধোরে ফেলে এবং হত্যা করে ।
∆ Read More: ফ্ল্যাশ সিজন ৬ এপিসোড ৫ রিভিউ
★ ডিক কে দেখা যায় বই নিয়ে শুয়ে শুয়ে পড়ছে। তখন একসেলমেট বলে, তুমি আমাদের ফাঁসিয়ে দিচ্ছো তাইনা? ডিক বলে যদি ফাঁসিয়ে দিতাম তাহলে এতোক্ষণে তোমরা অন্য একটি কড়া নিরাপত্তা সেল এ থাকতে । ডিক বলে তোমরা যে প্লান করেছো এই পরিকল্পনায় কাজ হবে না । তখন অন্য আরেকজন বলে উঠে তাহলে আমরা বাচব কিভাবে? ডিক উত্তর দেয় এর জন্য তো আমাকে হত্যা করতে হবে তাই না? 😩 বাকী সকলেই অবাক হয়ে যায় ওদের পরিকল্পনার কথা শুনে ।
★ এর পরে গারর আর কনরকে দেখা যায় টাইটান্স টাওয়ারে কথা বলতে । তখন গারর বলে, “আমরা টাইটান্স বিপদে সবসময় আমরা একে অপরকে সাহায্য করি” । তখন কনর বাকি টাইটান্সদের কথা জিজ্ঞাসা করলে সেটার উত্তর না দিয়ে গারর বলে । আমার উচিত ডিক এর কথামত ব্রুস ওয়েনকে কল করা । তখনি বিল্ডিং এর সিকিউরিটি অ্যালার্ম বেজে উঠে । সামনের কাচের জানালা ভেংগে ক্যাডমাস ল্যাবের লোকেরা তাদের উপর হামলা চালায় ।
★ কনর গারর এবং ক্রিপ্টো তাদের উপর হামলা চালায় । তখন ওই গার্ডেরা ক্রিপ্টো কে ক্রিপ্টোনাইট এর জাল দিয়ে আটকে ফেলে । পরে কনর লড়াই চালিয়ে যায় । এর পরে গারর বাঘে পরিণত হয়ে লড়াই শুরু করে । তখন মার্সি বলে প্লান চেঞ্জ কোন গুলি করো করো না । ঘুমের ইঞ্জেকশন দিয়ে আগাত করো ওদের কে জীবিত নিয়ে আসো । তখন মার্সি এসে কনর কে ডক্টর ইভের মিথ্যা কথা বলে গারর কনর আর ক্রিপ্টো কে ধোরে নিয়ে যায়।
★ অন্যদিকে ডিক আর তার অন্যান্য সহযোগীদের দেখা যায় নিজেদের মধ্যে তর্কাতর্কি করতে । তখন ডিক বলে তোমরা যে পরিকল্পনা করেছো সেটা একটি সুইসাইড মিশন । তখন একজন বলে আমরা জীবিত পালিয়ে যেতে পারব । জানো কেন? কারন আমাদের কে আলাযুল সাহায্য করবে । এই বলে সে একটি পাখির ছবি দেখায় ।
Read Also: ক্রাইসিস অন ইনফিনিটি আর্থ ট্রেইলার ব্রেকডাওন রিভিউ
★ এর পরে ক্যাডমাস ল্যাবে নিয়ে যাওয়া হয় । সেখানে মার্সি আর ওয়াল্টার কথা বলে । ওয়াল্টার চলে গেলে, মার্সি কনর এর সাথে কথা বলতে চলে যায় । কনর তাকে ছেড়ে দিতে বললে সে জানায় এটি সম্ভব নয় । তবে ডক্টর নাইস কল্ডার (ডুম প্যাট্রোল সিরিজের প্রোফেসর) যা করতে পারেনি সেটি করতে পারব আমরা । ক্যাডমাস ল্যাব তোমাকে গুরুত্ব দিবে তোমাকে সাহায্য করবে কি বলো ? গারর বলে কিন্তু আমি যদি টাইটান্স হতে চাই তাহলে? মার্সি হেসে দিতে চলে যায়।
★ এর পরের দৃশ্যে ডোনা কে দেখা যায় সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছে, যেখানে ওই শয়তান এর বাচ্চা লোকটিকে মেরে ফেলেছিল । তখন ডোনা পুনরায় ডিক কে ফোন করে বলে, র‍্যাচেল শুধু গায়েবই হয় নি । পরিস্থিতি আররো খারাপ এখানকার । তখন ডিক কে দেখা যায় সেলের বাইরে জিমনাস্টিক এ দাঁড়িয়ে রয়েছে । তখন তার সেলমেটরা রুকে যাওয়ার সময় তাদের একজনকে মেরে ফেলে কার্টেলের লোকজনে । রাতে ডিক বলে দেখ তোমরা যেটি করতে চাচ্ছ সেটি করো না । তোমরা ব্যার্থ হবে কিন্তু ওরা শুনে না । মধ্যরাতে ওদেরকে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়ার সময় ওরা পালাতে যায় কিন্তু গার্ডরা ওদেরকে ধোরে ফেলে । ঠিক তখনি ডিক এসে গার্ডদের ধোরে আঘাত করে ওদের কে পালাতে সাহায্য করে । অন্যদিকে বাকি গার্ডরা এসে ডিক কে মারতে শুরু করে ওদের কে পালাতে সাহায্য করায় ।
★ সর্বশেষে দেখা যায় ডোনা টাইটান্স টাওয়ারে এসেছে ।
কিন্তু সেখানকার ভাংগা চোড়া অবস্থা দেখে ও অবাক হয়ে যায় এখানে কি হয়েছে । এপিসোড এর পোস্ট ক্রেডিট সিনে দেখানো হয় মার্সি আর ওয়াল্টার কে যেখানে মার্সি বলে প্রজেক্ট-১৩ আর রাকশাহকা এর পরিকল্পনায় কিছুটা পরিবর্তনন আনা হয়েছে । তখন গারর কে ফোকাস করে এপিসোড শেষ হয় ।
→ Read More: The Mandalorian Episode 3 Review
∇ এখন এপিসোড ১০ শেষ হওয়ার পরে একাধিক প্রশ্ন তৈরি হয়েছে , গারর এর কি হবে কিংবা কনর কে কি করা হয়েছে । অন্যদিকে ডিক এর অপরাধের কারনে এখন তাকে কি করা হবে উত্যাদি বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে । আগামী সপ্তাহে প্রচারিত হতে যাওয়া টাইটান্স সিজন ২ এর এপিসোড ১১ তে । বিস্তারিত জানতে আমাদের সাথেই থাকুন । ∆
টাইটান্স সিজন ২ ট্রেইলার রিভিউ
∆ ডিসি টাইটান্স সিজন ২ ট্রেইলার ব্রেকডাওন রিভিউ পড়ুন এই লিংক থেকে ।
Disclosure: This post May contains affiliate links that support our Blog. When you purchase something after clicking an affiliate link, we may receive a commission. Also Note That We Are Not Responsible For Any Third-party Websites Link Contents
MD: Ashikur Rahman

আমি একজন মুভি ও সিরিজ লাভার। সুপারহিরো জেনরে আমি মার্ভেল ও ডিসি সকলের তৈরী সিনেমাই পছন্দ করি দেখতে। আমার ব্লগ সাইটঃ www.Tvhex.Com চাইলে আমাকে ফেসবুক ও টুইটারে ফলো করতে পারেন। facebook twitter

Post a Comment

আপনাদের কোন কিছু জানার থাকলে আমাদের কে কমেন্ট করে জানাতে পারেন ।



if you have something to say, “Please Comment your Opinion ” Thank You.

Previous Post Next Post