ব্লাক ওয়্যার ২০২৩ মুভি রিভিউ Black War Movie Review

ব্লাক ওয়্যার মুভি রিভিউ ডাওনলোড লিংক

সিনেমা হল থেকে বের হয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া

Black War – Mission Extreme 2

#Light_spoiler

যদি মিশন এক্সট্রিমের ১ম পার্ট না দেখে থাকেন তাহলে এই পার্টের সাথে ঠিকমত কানেক্ট হতে পারবেন না। হয়তো প্রখর ধারনশক্তি হলে আগের পার্ট না দেখেও কানেক্ট হতে পারবেন।

যারা ১ম পার্টের ডিটেলস মনে রেখেছেন তারা যথেষ্ট ইমোশনাল ভাবে এটাচড হবে। যদি তুলনা করি ব্ল্যাক ওয়ার মিশন এক্সট্রিম ২ প্রথম পার্টের তুলনায় গুণগতমানে অনেক অনেক উন্নত।

আপাদমস্তক একটি পুলিশ স্টোরি হয়েছে মিশন এক্সট্রিম ২. মুভিটির সবচেয়ে বড় প্লাস পয়েন্ট ‘কোন রোমান্টিক গান নেই’

মিশন এক্সট্রিমের ১ম পার্ট এবং সাম্প্রতিক কালের অপারেশন সুন্দরবনেও আলগা যুক্ত করা ‘রোমান্টিক এঙ্গেল’ ও কিছু গান স্ক্রিন প্লে, মুড ও মজা নষ্ট করেছিলো। দর্শকের প্রতিক্রিয়া শুনে পরিচালকদ্বয় এগুলো মুভি থেকে ফেলে দিয়েছেন।

তাই বলে কি স্ক্রিন প্লে একেবারে স্মুথ?



না।

তবে নেগেটিভ বিষয়ে পরে আসছি। স্পয়লার না দিয়ে রিয়েল লাইফ ইভেন্টের সাথে সমানুপাত করি। মিশন এক্সট্রিমের ১ম পার্টে লেখক অভিজিৎ রায় হত্যা, প্রকাশক দীপন হত্যা, পঞ্চগড়ে পু্রোহিত হত্যা ও হলি আর্টিসান হামলাকে কেন্দ্র করে DMP’র এন্টি টেরোরিস্ট ইউনিটের কিছু কেস ফাইল থেকে সাজানো চিত্রনাট্য দেখানো হয়েছিলো

২য় পার্টের ঘটনাগুলো অনেকাংশে সাধারণ মানুষের নজরে আসে নি। তবে গত দশকের শেষার্ধে বেতবুনিয়া ক্যাম্পে হামলার ঘটনাকে সিনেমাটিক লিবার্টিতে সাজানো হয়েছে।

তবে একদম পুরোপুরি কেস ফাইল ফলো করা হয় নি, কিছুটা সিনেমাটিক স্ক্রিপ্ট লেখা হয়েছে। তাই আগের পার্টের চেয়ে অনেক বেশি এনজয়েবল ছিল।

ইন্টারভালের আগে ‘জঙ্গীদের ইসলাম VS সাধারণ মানুষের ইসলাম’ এই ব্যাপারটাকে হাইলাইট করে চরম একটা দৃশ্য চিত্রায়িত হয়েছে। দৃশ্যটা যতটা ভাল লেগেছে, শেষ পর্যন্ত ওই দৃশ্যটার কোন ফ্রুটফুল আউটকাম না আসায় ততটাই খারাপ লেগেছে।।



আরেফিন শুভ, ঐশী, রোশান, নাবিলা, তাসকিন, ফজলুর রহমান বাবু, মাজনুন মিজান, ইরেশ জাকের, মিশা সওদাগর, শহীদুজ্জামান সেলিম, শামস সুমন, শতাব্দী ওয়াদুদ, হাসান ইমাম মজুমদার, লায়লা নূর সবাই তাদের পরিমিত স্ক্রিন টাইমে মানানসই কাজ করেছেন— কিন্তু ক্লাইম্যাক্সে এসে আবারো হিরো/ভিলেন ডুয়েল টা টিপিক্যাল বাণিজ্যিক ভাইব নিয়ে এসেছে।

বাংলাদেশের আর্ট হাউজ মুভির বাইরে বাণিজ্যিক সিনেমার সিনেমাটোগ্রাফিও দিনে দিনে উন্নত হচ্ছে। স্ক্রিন চোখ ধাঁধানো সুন্দর ও মনোরম ছিল। ড্রোন শটগুলোর ব্যবহার একদম নজরকাড়া ছিল।

বিজিএমে ভিন্নতা বেশ লক্ষ্যণীয় হয়েছে। টেরোরিস্টের স্ক্রিনটাইমে মধ্যপ্রাচ্যের ভাইবে বিজিএম আর পুলিশ স্ক্রিনটাইমে দেশাত্মবোধক বিজিএম একদম পারফেক্ট মিলেছে।

ক্লাইম্যাক্সে নোবেলের গানটা হৃদয় ছুঁয়েছে

দৃষ্টিকটু বিষয় ছিল কিছু প্রডাক্ট প্লেসমেন্ট আর আমাদের প্রশাসনের কিছু কর্মকর্তার রোবটিক অভিনয়। আমি জানি Cop Creation Production আমাদের পুলিশের গর্ব, কর্মদক্ষতা ও সফলতা প্রচারের জন্য। কেউ কেউ এটাকে প্রোপাগান্ডা বললেও পার্সোনালি আমি এটাকে এপ্রেশিয়েট করি।

কিন্তু স্বয়ং রাইটার ডিরেক্টর সহকারি কমিশনার সানি সারোয়ার, সাইবার ক্রাইম ইউনিটের প্রধান নাজমুল ইসলাম সুমনসহ আরো কিছু রিয়েল লাইফ কর্তাদের ক্যামেরাপ্রীতিটা ভাল লাগে নি। স্পিড, কুল, দারাজসহ আরো কিছু প্রডাক্ট প্লেসমেন্টের জন্য জোর করে লেখা দৃশ্যগুলো খুব চোখে লেগেছে।

আশা করি Cop Creation ভবিষ্যতেও বাংলা সিনেমার সফল যাত্রায় শক্তিশালী অংশীদার হবে।

#HappyWatching

লেখকঃ খাইরুল ইসলাম বাধন

Black War Movie Review, ব্লাক ওয়্যার মুভি রিভিউ, Black War Movie download link, ব্লাক ওয়্যার মুভি ডাওনলোড, ঢাকা অ্যাটাক মুভি লিংক, আরেফিন শুভ মুভি, বাংলা চলচ্চিত্র,

Watch ব্ল্যাক ওয়ার মিশন এক্সট্রিম ২ বাংলা মুভি ডাউনলোড লিংক,BLACK WAR Mission Extreme 2 Bangla Full Movie Download Link,যেভাবে ব্ল্যাক ওয়ার মিশন এক্সট্রিম ২ বাংলা মুভি ডাউনলোড করবেন? ,how to download black WAR Mission Extreme 2 Bangla Full Movie Download Link from Google Drive

ধন্যবাদ সবাইকে আমাদের সাথে থাকার জন্য।

Leave a Comment

Total Views: 499

Scroll to Top