হোয়াইট ল্যান্টার্ন বাংলা অরিজিন

Disclosure: This content is reader-supported, which means that if you click on some of our links. then we may earn a commission.

গ্রিন ল্যান্টার্নদের নিয়ে ধারাবাহিক সিরিজের আজকের পর্বে আলোচনা করব হোয়াইট ল্যান্টার্ন নিয়ে৷

গ্রিন ল্যান্টার্নদের সাহায্যকারী আরেক ইন্টার স্পেস এজেন্সি 'হোয়াইট ল্যান্টার্ন' । তবে বলে রাখা ভালো যে রেড ল্যান্টার্ন কিংবা গ্রিন ল্যান্টার্ন দের মত এরা একেবারে এক্টিভিট না । বরং এদেরকে পুরো মহাবিশ্বে যখনই লাইফ এন্টিটির কোন সমস্যা দেখা দেয়, তখনি এদের এক্টিভেট হতে দেখা যায় ।

{tocify} $title={Table of Contents}

ডিসির ব্ল্যাকেস্ট নাইট সিরিজে #7 ভলিউমে (এপ্রিল, 2010) প্রথম হোয়াইট ল্যান্টনের উপস্থিতি দেখা যায়। ব্ল্যাক কোর ল্যান্টার্ন যখন পুরো মহাবিশ্বে ধ্বংসযজ্ঞ চালাতে ব্যস্ত তখন জন স্টুয়ার্ট, হাল জর্ডানকে সতর্ক করে যে মহাবিশ্বে থাকা প্রতিটি ব্ল্যাক ল্যান্টার্ন পৃথিবীর দিকে ধেয়ে যাচ্ছে।

 

গার্ডিয়ান গ্যানথেট কোন উপায় না দেখে, হাল জর্ডানের রিং এর ডুপ্লিকেট তৈরি করে এবং নিজের হাতে পড়ে ফেলে। সে এ রকম করে বাকী ছয়টি রংয়ের রিং তৈরি করে। সেই রিং গুলি এবার পৃথিবীতে হোস্ট খুঁজতে থাকে।

 

দ্যা ফ্ল্যাশ (ব্যারি এলেন) হয় ব্লু ল্যান্টার্নে, সুপারম্যান এর ভিলেন লেক্স লুথার হয় অরেঞ্জ ল্যান্টার্নে, ব্যাটম্যানের ভিলেন স্কেয়ার ক্রো (ডক্টর ক্রেইন) হয় ইয়োলো ল্যান্টার্নে, এটম স্মাশার হয় ইন্ডিগো ল্যান্টার্নে, অ্যাকুয়াম্যানের বউ কুইন মীরা হয় রেড ল্যান্টার্নে পরিণত হয়।

 

অন্যদিকে ওয়ান্ডার ওমেন যে আগেই ব্ল্যাক ল্যান্টার্নে পরিণত হয়েছিল তার উপর স্টার স্যাফায়ারের রিং প্রভাব বিস্তার করে। যার ফলে সে হয়ে যায় ভায়োলেট ল্যান্টার্ন ।

 

white lantern bangla origin

 

এদিকে নেক্রন একজন গার্ডিয়ানকে মেরে ফেলে। এর পরে সে তার শরীর থেকে হার্ট বের করে ফেলে। যার ফলে সেখানে এক অজানা এন্টিটির আবির্ভাব ঘটে। তখন গার্ডিয়ান গ্যানথেট লক্ষ কোটি বছর ধরে লুকিয়ে রাখা তাদের একটি সিক্রেট প্রকাশ করে। সে বলে যে, মহাবিশ্বে প্রথম লাইফ এন্টিটি বা জীবনের উদ্ভব হয়েছিল আমাদের এই পৃথিবীতে। পরে বিভিন্ন কালারের স্পেকট্রাম হয়ে এটা ছড়িয়ে পড়ে সুদূর মহাকাশে।

 

পৃথিবী গ্রহের সেন্ট্রাল ভাগে ধারণ করে আছে সেই আদি ও মূল জীবন। ব্ল্যাক ল্যান্টার্নরা যদি একে ধংস করতে পারে তাহলে চিরতরের জন্য ইউনিভার্স থেকে “জীবন” মুছে যাবে । তাই তাদেরকে থামাতে হলে হোয়াইট লাইট তৈরি করতে হবে । যার জন্য তাদের একত্রে পুরো সাতটি কোরের পাওয়ার দরকার হবে। এরপর পরই নেক্রন আঘাত করে বসে সেই এন্টিটিতে।

 

হাল জর্ডান বুঝতে পেরেছিল যে এই এন্টিটি প্যারালাক্স এবং আয়ন এর মতোই এবং তার জন্য একটি গাইডের দরকার। তাই নেক্রন যখন এন্টিটি ধ্বংস করতে ব্যস্ত ছিল, তখন হাল তাকে থামাতে এবং এই এন্টিটির হোস্ট হওয়ার জন্য এগোতে থাকে৷ কিন্তু সিনেস্ট্রো তাকে অবরুদ্ধ করে, আর বলে সেই হোস্ট হবার জন্য সবচেয়ে যোগ্য। তাই সে ওই এন্টিটির কাছে যায় এবং প্রথম হোয়াইট ল্যান্টার্ন রূপে নিজেকে আত্নপ্রকাশ করে।

 
White-Lantern-Corps-Bangla-Origin
Copyright: DC COMICS
 
 
 

এরপর সে নেক্রনের উপর হামলা করে ও তার দেহ থেকে নেক্রণের হার্ট আলাদা করে ফেলে। কিন্তু নেক্রন পিউর ব্ল্যাক এনার্জি দিয়ে তৈরি হওয়ায় এতে তার কিছুই হয় না। শুরু হয়ে যায় ব্ল্যাক কোরের সাথে বাকি সবার যুদ্ধ। অন্যদিকে ইন্ডিগো-১ তার পাওয়ার ব্যবহার করে অন্যান্য সকল জীবিত ল্যান্টারনদের যুদ্ধে সমবেত করে।

 

হাল জর্ডানের নির্দেশে সবাই ওই নেক্রনের উপর হামলা করে। কিন্তু কোন লাভ হয়না , বরং সিনেস্ট্রো হোয়াইট ল্যান্টারন থেকে বিচ্যুত হয়ে যায় এবং পুনরায় ইয়োলো ল্যান্টারন এ পরিনত হয়ে যায় । গ্যানথেট বলে যে সিনেস্ট্র এন্টিটিকে সঠিক ভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি৷ এর কারন তার নিজের মধ্যে তীব্র অহংকার।

যার কারনে হাল নিজেই এন্টিটির সাথে একীভূত হয়ে নিজেকে এবং ব্ল্যাক ল্যান্টারনদের মধ্যে যারা আগে সুপার হিরো ছিল, তাদেরকে একটি হোয়াইট ল্যান্টন কোরে রূপান্তরিত করে। এবার সবাই মিলে ব্ল্যাক হ্যান্ড কে আক্রমন করে বসে, আর সেই মুহুর্তেই সে মৃত জোম্বি অবস্থা থেকে জীবিত অবস্থায় ফেরত আসে। সেই সাথে হ্যান্ডের ভিতর থেকে বের হয়ে আসতে থাকে আরো হোয়াট রিং।

 

White Lantern Bangla Origin

 

হোয়াইট রিংগুলি কেবল বারোজন ব্ল্যাক ল্যান্টারনকে পুনরুত্থিত করে হোয়াইট ল্যান্টার্নে। তারা হল ওয়ান্ডার ওম্যানের শত্রু ম্যাক্সওয়েল লর্ড, ফ্লাশের নেমেসিস রিভার্স-ফ্ল্যাশ, জেড, দ্যা হক, সুইসাইড স্কুয়াডের ক্যাপ্টেন বুমেরাং, ফায়ার স্টর্ম (রোনাল্ড রেমন্ড), জাস্টিস লিগের সদস্য মার্শিয়ান ম্যানহান্টার, অ্যাকুয়াম্যান, হওয়াকম্যান, হওয়াকগার্ল, জাস্টিস লিগ ডার্কের সদস্য ডেডম্যান (বোস্টন ব্র্যান্ড) এবং ওসিরিস।

 

এই বারজনের সাথে সাথেই এন্টিমনিটর ও পুনরুত্থিত হয় । কিন্তু সদ্য রিভাইভ হওয়া এন্টি মনিটর নেক্রনকে হামলা করলেও বেশি কিছু করতে পারে না । যার ফলে নেক্রন উল্টো এন্টিমনিটরকে তাকে এন্টিম্যাটার ইউনিভার্সে পাঠিয়ে দেয়। কিন্তু ব্লাক হ্যান্ডের ভিতর থেকে বের হয়ে আসতে থাকা , আরও কিছু হোয়াট রিং অবশেষে নেক্রনকে শেষ পর্যন্ত মেরে ফেলতে সক্ষম হয় ।

 

জীবিত হওয়া সবাই লড়াইয়ে শেষে পুনরায় তাদের নিজেদের প্রিয় জনদের কাছে চলে যায়। অন্যদিকে ইন্ডিগো ট্রাইব তারা ব্ল্যাক হ্যান্ড কে বন্দী করে এবং তাদের নিজ প্ল্যানেটে নিয়ে চলে যায়।

 
হোয়াইট ল্যান্টার্ন ওরিজিন রিং
Copyright Credit: DC Comic
 
 
 
 

পরবর্তীতে সেক্টর 2814 এ কাইল রাইনার নিজের আংটিতে, ইমোশনাল স্পেক ট্রামের সাতটি রঙ আয়ত্ত করে ফেলে । যার ফলে তার রিং সাদা আলোতে পরিবর্তন হয় এবং সে একজন হোয়াইট ল্যান্টারনে পরিণত হয়ে যায় ।

 

হোয়াট ল্যান্টারন কোরের শপথ:

 

In Brightest Day, There Will Be Light To Cleanse, The Soul And Set Wrong Right. When Darkness Falls Look To The Skies, A New Dawn Comes, Let There Be Light.

 

সংক্ষিপ্ত আকারে হোয়াইট ল্যান্টার্ন অরিজিন পোস্টি লিখে ছিলেন 'সামিউল রাহাত' ভাইয়া ।

 

কিন্তু তার পোস্টি ছোট্ট হওয়ায় এবং ভালোমতো বোঝার জন্যে

 

ওই পোস্টে আমি গুগল / উইকিপিডিয়া এবং ফ্যান্ডম থেকে বাড়তি তথ্য যোগাড় করে White Lantern Corps অরিজিন পোস্টি মডিফাই করে লিখে পাবলিশ করেছি৷

 
 
white lantern bangla origin
 
 
 

White-Lantern-Corps-Bangla-Origin

Lantern-Origin, origin, White-Lantern
 
white-lantern-bangla-origin
 
হোয়াইট ল্যান্টার্ন বাংলা অরিজিন 
 
white lantern bangla origin
 
হোয়াইট ল্যান্টার্ন বাংলা অরিজিন ।
 
White Lantern Corps Bangla Origin
 
হোয়াইট ল্যান্টনের অরিজিন
Disclosure: This post May contains affiliate links that support our Blog. When you purchase something after clicking an affiliate link, we may receive a commission. Also Note That We Are Not Responsible For Any Third-party Websites Link Contents
MD: Ashikur Rahman

আমি একজন মুভি ও সিরিজ লাভার। সুপারহিরো জেনরে আমি মার্ভেল ও ডিসি সকলের তৈরী সিনেমাই পছন্দ করি দেখতে। আমার ব্লগ সাইটঃ www.Tvhex.Com চাইলে আমাকে ফেসবুক ও টুইটারে ফলো করতে পারেন। facebook twitter

Post a Comment

আপনাদের কোন কিছু জানার থাকলে আমাদের কে কমেন্ট করে জানাতে পারেন ।



if you have something to say, “Please Comment your Opinion ” Thank You.

Previous Post Next Post